দোয়ারাবাজারের যুবক সালাম হত্যাকান্ডের ঘটনায় দুই পক্ষের পাল্টাপাল্টি মামলা

প্রকাশিত: ৮:২২ অপরাহ্ণ, নভেম্বর ৩০, ২০২০

দোয়ারাবাজারের যুবক সালাম হত্যাকান্ডের ঘটনায় দুই পক্ষের পাল্টাপাল্টি মামলা

দোয়ারাবাজার প্রতিনিধি
দোয়ারাবাজার উপজেলার দোহালিয়া ইউনিয়নের গুরেশপুর গ্রামের নৈশপ্রহরী সালাম হত্যাকান্ডের ঘটনায় পাল্টাপাল্টি মামলা দায়ের করেছে দুই পক্ষ। একটি মামলায় স্থানীয় ইউপি সদস্যকে প্রধান আসামী এবং অপর মামলায় লন্ডন প্রবাসী কামরান আব্দুল হাইকে প্রধান আসামী করা হয়ছে।
জানা যায়, গত ১৭ নভেম্বর সকালে গোরেশপুর গ্রামে একটি ধানক্ষেত সালামের মরদেহ উদ্ধার করে পুলিশ। চাঞ্চল্যকর এই হত্যাকাণ্ডের ঘটনায় নিহত আব্দুস সালামের স্ত্রী লাভলী বেগম বাদী হয়ে ১৭ নভেম্বর দোহালিয়া ইউনিয়নের গুরেশপুর গ্রামের লন্ডন প্রবাসী কামরান আব্দুল হাইকে প্রধান আসামী করে গ্রামের ৭ জনের বিরুদ্ধে দোয়ারাবাজার থানায় একটি হত্যা মামলা (নং-৯/১৩৭) দায়ের করেন। অপরদিকে বাদে গুরেশপুর গ্রামের অজুদ আলীর স্ত্রী মহন মালা বাদী হয়ে স্থানীয় ইউপি সদস্য আলী হোসেনকে প্রধান আসামী করে ১৪ জনের বিরুদ্ধে ২৯ নভেম্বর সুনামগঞ্জ জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে পাল্টা আরেকটি মামলা দায়ের করেন। যার সি. আর মোকদ্দমা নং ২৩০/২০২০। এই মামলায় গুরেশপুর গ্রামের আমিনুল, সাবিক উদ্দিন, ময়না মিয়া, ইদ্রিছ আলী, নুরুজ্জামান, নাজিম উদ্দিন, আল আমিন, আছকির আলী, মামুন মিয়া, সাদিকুর রহমান, বাবুল মিয়া, গোলাপ মিয়া, জসিমসহ ১৪ জনকে আসামি করা হয়েছে।
উল্লেখ্য, নিহত যুবক আব্দুস সালাম উপজেলার সদর ইউনিয়নের নৈনগাঁও গ্রামের মৃত মুমশ্বর আলীর ছেলে। তিনি গোরেশপুর গ্রামের লন্ডন প্রবাসী কামরান আব্দুল হাইয়ের বাড়িতে নৈশপ্রহরীর কাজ করতেন।

সংবাদ অনুসন্ধান ক্যালেন্ডার

আমাদের ফেইসবুক পেইজ