দিহানের বাসায় আনুশকার ৯০ মিনিট, সিসিটিভি ফুটেজে ৩ ব্যক্তির রহস্যময় গতিবিধি

প্রকাশিত: ৩:৪৩ অপরাহ্ণ, জানুয়ারি ১৩, ২০২১

দিহানের বাসায় আনুশকার ৯০ মিনিট, সিসিটিভি ফুটেজে ৩ ব্যক্তির রহস্যময় গতিবিধি

অনলাইন ডেস্ক :: এখনও রহস্যে আবৃত মাস্টারমাইন্ড স্কুলছাত্রীর মৃত্যুর ঘটনা। ময়নাতদন্তের রিপোর্টের অপেক্ষায় আছে পুলিশ। জিজ্ঞাসাবাদের জন্য আটক করা হয়েছে, দিহানের বাসার প্রহরী দুলালকে। সিসি ক্যামেরার ফুটেজ বিশ্লেষণে দেখা যায়, বাসাটিতে প্রায় দেড় ঘণ্টা ছিল মেয়েটি। এ সময় রহস্যজনক গতিবিধি ছিল তিন ব্যক্তির। পুলিশ প্রধানের ধারণা, সর্বগ্রাসী মাদকের পরিণতিতেই এমন ঘটনা ঘটতে পারে।

গত ৭ জানুয়ারি দুপুর ১২.১২ মিনিট। কলাবাগানে দিহানের বাসার সিড়িঘরের দিকে যাচ্ছেন ওই স্কুলছাত্রী। দুপুর একটার দিকে বাসার সামনে রহস্যজনক গতিবিধির দেখা মেলে তিন ব্যক্তির। তবে তাদের পরিচয় বোঝার উপায় নেই। প্রায় দেড় ঘন্টা পর দুপুর ১টা ৩৬ মিনিটে বাসা থেকে বের হয় দিহানের গাড়ি।

সিসি ক্যামেরার ফুটেজ বিশ্লেষনে এমন তথ্য মিললেও, এখনও মৃত্যুর সঠিক কারণ খুঁজে বের করা সম্ভব হয়নি। তাই জিজ্ঞাবাসাদের জন্য ওই দিন দায়িত্বে থাকা প্রহরী পলাতক দুলালকে আটক করেছে পুলিশ। গণমাধ্যমে খোলা চিঠি লিখলেও অনেক চেষ্টা করেও ক্যামেরার সামনে আসতে রাজি হননি দিহানের মা।

মনোবিজ্ঞানীরা বলছেন, বিকৃত যৌনাচার ও হত্যার এমন ঘটনা পুরো জাতির জন্য একটি সতর্ক সংকেত।

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের অপরাধবিজ্ঞান বিভাগের চেয়ারম্যান খন্দকার ফারজানা রহমান জোর দিচ্ছেন পারিবারিক ও স্বশিক্ষার উপর। একইসাথে আইনের কঠোর প্রয়োগও চান তিনি।

তবে, তরুণ প্রজন্মের ওপর আস্থা হারাতে চান না, অপরাধ বিজ্ঞানের এই শিক্ষক। তার আশা, বিকৃত রুচির বিলুপ্তি ঘটিয়ে সহিংসতাহীন স্বশিক্ষিত প্রজন্মে নিরাপদে বেড়ে উঠবে প্রতিটি প্রাণ।

এ সংক্রান্ত আরও সংবাদ

সংবাদ অনুসন্ধান ক্যালেন্ডার

আমাদের ফেইসবুক পেইজ