সিলেটে করোনার টিকা পাবেন ১০ লাখের বেশি মানুষ

প্রকাশিত: ৭:২৬ অপরাহ্ণ, জানুয়ারি ১৪, ২০২১

সিলেটে করোনার টিকা পাবেন ১০ লাখের বেশি মানুষ

 

নিজস্ব প্রতিবেদক :: মহামারি করোনা থেকে বাঁচতে গোটা বিশ্ব এখন ভ্যাকসিন তথা টিকার পেছনে ছুটছে। বাংলাদেশও টিকা পেতে ভারতের সঙ্গে চুক্তি করেছে। ভারতের সেরাম ইনস্টিটিউটের অক্সফোর্ড-অ্যাস্ট্রাজেনেকার ভ্যাকসিন চলতি মাসের ২১ থেকে ২৫ জানুয়ারির মধ্যে বাংলাদেশে আসবে।

ভ্যাকসিন পাওয়ার পর তা কীভাবে প্রয়োগ করা হবে, কোন জেলায় কতো সংখ্যক মানুষকে এ ভ্যাকসিন দেওয়া হবে, তা নিয়ে কাজ করছে বাংলাদেশ।

স্বাস্থ্য অধিদপ্তর সূত্রে জানা গেছে, প্রাথমিকভাবে দেশের কোনো বিভাগে কতো জন টিকা পাবেন, তা নির্ধারণ করা হয়েছে। এ বিষয়ে টিকা বিতরণ পরিকল্পনাও করা হয়েছে। সেখানে দেখা গেছে, সিলেট বিভাগের চার জেলায় প্রাথমিকভাবে ১০ লাখ ৩২ হাজার টিকা প্রদান করা হবে।

জানা গেছে, সংক্রমণের হার ও জনসংখ্যার ঘনত্ব বিবেচনায় সারাদেশের কোন কোন জেলায় কত সংখ্যক ভ্যাকসিন বিতরণ করা হবে, তা নির্দিষ্ট করা হয়েছে। এ প্রেক্ষিতে সবচেয়ে বেশি টিকা পাবেন ঢাকা জেলার বাসিন্দারা। এ জেলায় বরাদ্দ রয়েছে ১২ লাখ ৫৪ হাজার ২০০ ডোজ টিকা। আর সবচেয়ে কম ৪০ হাজার ৪৩৯ ডোজ টিকা বরাদ্দ হয়েছে বান্দরবান জেলার জন্য।

স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের ‘কোভিড-১৯ ভ্যাকসিন ডিস্ট্রিবিউশন প্ল্যানে’ দেখা গেছে, সিলেট বিভাগের সিলেট জেলায় ৩ লাখ ৫৭ হাজার ৬১৯ ডোজ, সুনামগঞ্জে ২ লাখ ৫৭ হাজার ২ ডোজ, মৌলভীবাজারে ১ লাখ ৯৯ হাজার ৮৪২ ডোজ ও হবিগঞ্জ জেলায় ২ লাখ ১৭ হাজার ৫৩৮ ডোজ টিকা দেওয়া হবে প্রাথমিক অবস্থায়।

এদিকে, ঢাকা বিভাগে টিকা দেওয়া হবে ৪৯ লাখ ৩৮ হাজার ৫৪৫ জনকে, চট্টগ্রাম বিভাগে ২৯ লাখ ৫৯ হাজার ৮৩৩ জনকে, রাজশাহী বিভাগে ১৯ লাখ ২৪ হাজার ৯২২ জনকে, রংপুর বিভাগে ১৬ লাখ ৪৪ হাজার ৫৯ জনকে, খুলনা বিভাগে ১৬ লাখ ৩৩ হাজার ৬৪৬ জনকে এবং বরিশাল বিভাগে ৮ লাখ ৬৬ হাজার ৯৯৪ জনকে টিকা দেওয়া হবে।

জানা গেছে, জানুয়ারিতে টিকা এলেও তা প্রয়োগ করা হবে ফেব্রুয়ারির প্রথম সপ্তাহ থেকে।

এ সংক্রান্ত আরও সংবাদ

আমাদের ফেইসবুক পেইজ