সুনামগঞ্জে ফুলের চারা দিয়ে লেখা হল ‘মুজিব ১০০’

প্রকাশিত: ৮:০১ অপরাহ্ণ, জানুয়ারি ১৯, ২০২১

সুনামগঞ্জে ফুলের চারা দিয়ে লেখা হল ‘মুজিব ১০০’

সুনামগঞ্জ প্রতিনিধি::
সুনামগঞ্জ সদর হাসপাতাল এক সময় ছিল অপরিচ্ছন্ন। গেলেই দেখা যেত চারিদিকে ময়লা। অসহায় লোকজনের চিকিৎসার শেষ আশ্রয়স্থল সুনামগঞ্জ সদর হাসপাতালটি যেন ছিল নিজেই রুগ্ন। হাসপাতালে যাওয়ার দুর্গন্ধ নাকে লাগে নি এমন লোক পাওয়া ছিল দুষ্কর। কিন্তু বর্তমানে তা আর নেই। দিন দিন পরিবর্তন হচ্ছে সুনামগঞ্জ সদর হাসপাতালটি। ভাল মানের সেবা দিতে কাজ করছেন সিভিল সার্জন। জাতির জনক বঙ্গবন্ধুর জন্মশত বার্ষিকী উপলক্ষে সেবা মান অধিকতর বৃদ্ধির লক্ষ্যে কাজ করছে বলে জানিয়েছেন সুনামগঞ্জের সিভিল সার্জন ডা. শামস উদ্দিন।

মঙ্গলবার (১৯ জানুয়ারি) ২৫০ শয্যা সুনামগঞ্জ সদর হাসপাতালের প্রধান ফটকের বাগান দেখে অনেকের চোখ কপালে ওঠার মত অবস্থা। মুজিব বর্ষ উপলক্ষে ফুলের বাগানকে সাজানো হয়েছে অন্য রকম এক রূপে। জাতির জনক সম্মান জানিয়ে ফুলের চারা দিয়ে “মুজিব ১০০” লিখা হয়েছে যা মানুষের নজর কাড়ছে। হাসপাতালের বিল্ডিং এর উপর থেকে দেখলে মনে এ লেখা ফুলের চারা দিয়ে নয় অক্ষর বসিয়ে লেখা হয়েছে। কিন্তু ফুলের চারা দিয়ে এটি সম্ভব করেছে হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ।

হাসপাতালের আট তলার সব জায়গায় চালানো হয়েছে পরিষ্কার অভিযান। যাতে করে কোথাও কোন ময়লা না থাকে। মুজিব বর্ষের প্রতি সম্মান জানিয়ে ধীরে ধীরে এই কাজ গুলো বাস্তবায়ন করা হয়েছে। ভভিষ্যতে আরও উন্নত সেবা পাওয়া যাবে বলেন জানিয়েছেন বর্তমান সিভিল সার্জন। এছাড়া হাসপাতালে নিরাপত্তা ও সৌন্দর্য বর্ধনের জন্য দেয়াল উঁচু করণ এবং চারিদিকে লাইট লাগানো সহ বিভিন্ন উন্নয়ন মূলক কাজ হাতে নেয়া হয়েছে। আশার কথা হল সুনামগঞ্জ সদর হাসপাতালে সরকারি হিসেবে সেবার মানের দিক থেকে এক থেকে দেড় বছর আগে ৫৮ নম্বরে থাকলেও বর্তমানে সারা বাংলাদেশের মধ্যে ১৪ নম্বরে উন্নীত হয়েছে।

এই ধারাবাহিকতা বজায় থাকলে কোনও এক সময় সুনামগঞ্জ সদর হাসপাতাল সেবা ও মানের দিক থেকে বাংলাদেশের মধ্যে ১ নম্বরে চলে যেতে পারে। তবে মুজিব বর্ষ উপলক্ষে জাতির জনকের জন্মশত বার্ষিকীতে ফুলের বিভিন্ন প্রজাতির ফুলের চারা দিয়ে লেখা “মুজিব ১০০” মানুষের নজর কেড়েছে।

হাসপাতাল এলাকার বাসিন্দা আমির মিয়া জানান, মুজিব ১০০ যখন ফুলের চারা মাধ্যমে ফুটে ওঠছে তা প্রথমে বুঝতে পারি নি। পরে যখন চারা গুলো একটু বড় হল তখন মানুষের চোখে ভেসে ওঠে। এই লেখা টি উপর থেকে দেখলে খুব সুন্দর দেখা যায়। হাসপাতালের আশপাশ ইদানীং পরিষ্কার দেখা যাচ্ছে। দেখা যাক কত দিন পরিষ্কার থাকে।

সিভিল সার্জন ডা. মো. শামস উদ্দিন বলেন, হাসপাতালের সেবার মান উন্নতি করার লক্ষ্যে আমি আসার পর থেকে কাজ করছি। আগামীতে আরও সেবার মান বৃদ্ধি পাবে। রোগীদের অভিযোগ গুলো চিহিৃত করে কাজ করছি। আর শীতের সময় বাগান করা হয়েছে। এটিকে ভিন্ন আঙ্গিকে তুলে ধরতে জাতির জনকের প্রতি সম্মান দেখানোর জন্য ফুলের চারা দিয়ে “মুজিব ১০০” লিখা হয়েছে। আশা করছি এটি দেখে সবার ভাল লাগবে। সেবার মান কি ভাবে শত ভাগ নিশ্চিত করা যায় সেটি নিয়ে গুরুত্ব দিয়ে কাজ করছি।

আমাদের ফেইসবুক পেইজ