সিলেটের শীর্ষ প্রতারক সাজন গ্রেপ্তার

প্রকাশিত: ৯:৫৭ অপরাহ্ণ, ফেব্রুয়ারি ১৫, ২০২১

সিলেটের শীর্ষ প্রতারক সাজন গ্রেপ্তার

নিজস্ব প্রতিবেদক:: সিলেটের শীর্ষ প্রতারক আব্দুল ওয়াহিদ সাজনকে গ্রেপ্তার করেছে এয়ারপোর্ট থানা পুলিশ। আজ সোমবার (১৫ ফেব্রুয়ারি) রাত ৮টার দিকে বনকলাপাড়া এলাকা থেকে তাকে গ্রেপ্তার করা হয়।

এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন এয়ারপোর্ট থানার অফিসার ইনচার্জ মাইনুল জাকির। তিনি জানান, গ্রেপ্তারকৃত আব্দুল ওয়াহিদ সাজনের বিরুদ্ধে একাধিক মামলায় গ্রেপ্তারী পরোয়ারা রয়েছে। দীর্ঘদিন থেকে সাজন পলাতক ছিল। আজ রাতে তাকে বনকলাপাড়ায় অভিযান চালিয়ে গ্রেপ্তার করা হয়।

জানা যায়- আব্দুল ওয়াহিদ সাজন সিলেটের একজন শীর্ষ প্রতারক। প্রতারণা করে আপন বড় ভাই লন্ডন প্রবাসী আব্দুল গণি উরফে আলী গণির লন্ডনী রোড ৮৯নং আহমদ ভিলা বাসা দখল করে ভোগ করছেন। আরেকটি বাসা এয়ারপোর্ট থানাধীন কাকুয়ারপাড়ে দখল করার পায়তারা করছিলেন।

তার বিরুদ্ধে জালিয়াতির একাধিক প্রমাণ পেয়েছে সিআইডি। এয়ারপোর্ট থানার সিআর মামলা নং- ১৮৯/২০১৯ এর প্রেক্ষিতে তদন্ত রিপোর্ট পেশ করেছে সিআইডি। সিআইডি সিলেট জোনের পুলিশ পরিদর্শন রোকেয়া খানম তদন্ত রিপোর্টে উল্লেখ করেন, আব্দুল ওয়াহিদ সাজন প্রতারণা করে লন্ডন প্রবাসী তার বড় ভাই আব্দুল গণি উরফে আলী গণির নামে পাসপোর্ট, জাতীয় পরিচয়পত্র সৃজন করে নিজে আব্দুল গণি উরফে আলী গণি সেজেছে। আলী গণি সেজে তার বড় ভাইয়ের বাসা-বাড়ি একের পর এক দখল করে ভোগ করছে। ইতোমধ্যে নগরীর লন্ডনী রোডস্থ ৮৯নং আহমদ ভিলা বাসা দখল করে ভোগ করছে। এয়ারপোর্ট থানাধীন কাকুয়ারপাড়ে আরেকটি বাসা দখল করতে একাধিক বার হামলা চালিয়েছে সাজন ও তার সহযোগী সন্ত্রাসীরা। হামলায় ওই বাসার ভাড়াটিয়া ও কেয়ারটেকার গুরুতর আহত হন। তাদেরকে বাসা ছেড়ে দেয়ার হুমকি দেয় সন্ত্রাসীরা। না হয়- ভাড়াটিয়াদের প্রাণের হত্যা করবে বলেও জানিয়ে দেয় সাজন। এ ঘটনায় গুরুতর আহত ভাড়াটিয়া রাসেল আহমদ এয়ারপোর্ট থানায় মামলা দায়ের করেছেন। যার নং- ১১২/১৯। লন্ডনী রোড ৮৯নং আহমদ ভিলা বাসা দখলের ঘটনায় এয়ারপোর্ট থানায় মামলা নং- ৮৫/২০১৭।

সংবাদ অনুসন্ধান ক্যালেন্ডার

আমাদের ফেইসবুক পেইজ