ভারাক্রান্ত মনে এলোমেলো ভাবনা………

প্রকাশিত: ১২:১৩ পূর্বাহ্ণ, জুন ৩০, ২০২০

ভারাক্রান্ত মনে এলোমেলো ভাবনা………

রুহুল কুদ্দুস বাবুল :; মন ভারাক্রান্ত। সিদ্ধান্ত নিয়েছিলাম করোনা বিষয়ে আর ভাববো না, লিখবোও না। আমার লেখায় কি আসে যায় ! যেখানে দেশের সেরা চিকিৎসা বিজ্ঞানীরা প্রতিনিয়ত কথা বলছেন, উপদেশ দিচ্ছেন তাদের কথা অগ্রাহ্য হচ্ছে। তাঁরা প্রকাশ্যে ক্ষোভ প্রকাশ করছেন। ক্ষোভ প্রকাশ করছেন চিকিৎসকদের সংগঠন বিএমএ, স্বাধীনতা চিকিৎসক পরিষদের নেতৃবৃন্দ। করোনা প্রতিরোধে সবধরনের বৈজ্ঞানিক মতামত উপেক্ষিত হচ্ছে ! সেখানে আমরা সাধারণ মানুষের কিই বা বলার আছে।
গতকাল বিবেকের তাড়নায় একটা বিষয়ে প্রতিবাদ করতে বাধ্য হয়েছি। টিভিতে খবর দেখছিলাম, একটা খবরে আঁতকে উঠলাম এটা কি করে সম্ভব ! এ উদ্ভট চিন্তা কার মস্তিষ্কপ্রসূত ! কোভিড টেষ্টে ফি নির্ধারনে প্রস্তাব করেছে স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়। অর্থমন্ত্রণালয় অনুমোদন দিয়ে মন্ত্রিপরিষদে পাঠিয়েছে অনুমোদনের জন্য। এটা অন্যায় অযৌক্তিক প্রতিবাদ করতেই হয়। তাই ছোট একটা মন্তব্যে পতিবাদ করি। আশা করি মাননীয় প্রধানমন্ত্রির কাছে বিষয়টা বাতিল হবে।
আজ দুঃখভারাক্রান্ত। মূলত গতকাল থেকেই মন খারাপ। আমার অতি পরিচিতজন সিলেটের একজন বিশিষ্ট মনরোগ চিকিৎসক সদালাপি অত্যন্ত শিষ্টাচারসম্পন্ন একজন মানুষ যার সাথে প্রায় প্রতিদিনই দেখাসাক্ষাৎ হতো অধ্যাপক গোপাল শংকর দে করোনা আক্রান্ত হয়ে মৃত্যুবরণ করছেন। এ খবরটির মনকষ্ট থাকা অবস্থায় আজ আরও দুটো খবর। প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয়ের সচিব আব্দুল্লাহ আল মহসিন চৌধুরী, মুক্তিযোদ্ধা সাংবাদিক মোজাম্মেল হক ও মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক মন্ত্রির সহধর্মিনি লায়লা আরজুমান্দ বানু করোনা আক্রান্ত হয়ে মৃত্যুবরণ করেছেন। টিভি খুলতেই মর্মান্তিক খবর একটা লঞ্চ অন্যটাকে ধাক্কা দিয়ে ডুবিয়ে দিয়েছে। ৩২ জনের লাশ উদ্ধার। মন ভালো থাকার বা ভালো রাখার কোন উপায় নেই।
দুদিন যাবৎ ফোনে বন্যাকবলিত মানুষের আহাজারী শুনছি অনবরত। বিশেষ করে সিলেট সুনামগঞ্জ অঞ্চলের মাছচাষীদের। যাদের সাথে আমার সম্পর্ক নিবিড়। নব্বই শতাংশই সর্বস্ব খুইয়েছে। তাদের আর ঘুরে দাড়ানোর সুযোগ নেই।
কোভিড আক্রান্ত হয়েছেন রনোভাই হায়দর আকবর খান রনো প্রবীণ রাজনীতিবিদ পগতিশীল লেখক, আমার প্রিয় একজন ব্যক্তিত্ব। সস্ত্রীক আক্রান্ত হয়েছেন সিলেটের বিশিষ্ট হৃদরোগ বিশেষজ্ঞ অধ্যাপক আমিনুর রহমান লস্কর।
চিকিৎসক, স্বাস্থ্যকর্মি, আমলা, শিক্ষক, রাজনীতিবিদ, সাংবাদিক, পুলিশ, সেনা সদস্য, শ্রমিক বিভিন্ন পেশার মানুষ করোনায় আক্রান্ত হচ্ছেন, মৃত্যুবরণ করছেন। পাশাপাশি চলছে স্বাস্থ্যবিভাগের চরম অব্যবস্থাপনা। দুইশত ডাক্তারের একমাসের খাওয়ার বিল ২০ কোটি টাকা ! টেষ্টকীট ফুরিয়ে গেছে ! হাসপাতালে অক্সিজেন সংকট! আইসিইউর স্বল্পতা ! স্বাস্থ্যবিধি মেনে কুরবানির হাট বসবে ! স্বাস্থ্যবিধি মানতে মানতে কোথায় চলেছি !
আমরা কি সঠিক পথে চলছি ?
রুহুল কুদ্দুস বাবুল
২৯.০৬.২০২০
(লেখক : সাধারণ সম্পাদক, জেলা ঐক্যন্যাপ সিলেট )