কিডনি ফাউন্ডেশন হাসপাতাল সিলেটের প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উদযাপন

প্রকাশিত: ৬:৪৯ অপরাহ্ণ, জুলাই ২০, ২০২০

কিডনি ফাউন্ডেশন হাসপাতাল সিলেটের প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উদযাপন

অনলাইন ডেস্ক: উৎসাহ-উদ্দীপনার মধ্যে দিয়ে কিডনি ফাউন্ডেশন হাসপাতাল সিলেটের দ্বিতীয় প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী উদযাপিত হয়েছে। সোমবার (২০ জুলাই) দুপুর ১২টায় উপশহরস্থ কিডনি ফাউন্ডেশন হাসপাতাল সিলেটের সম্মেলন কক্ষে সামাজিক দুরত্ব ও স্বাস্থ্য বিধি মেনে সুধীজনরা কেক কেটে দ্বিতীয় প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উদযাপন করেন।

২০১৮ সালের ২০ জুলাই কিডনি ফাউন্ডেশন হাসপাতাল মানবতারসেবা করা উদ্দেশ্যে যাত্রা শুরু করে। সেই থেকে নামমাত্র মূল্যে এখন পর্যন্ত প্রায় ৬ হাজার ৮শ ৯৬ জন রোগীর ডায়ালাইসিস করেছে কিডনি ফাউন্ডেশন হাসপাতাল সিলেট। তার মধ্যে ৭৫ শতাংশ রোগীকে বিনামূল্যে ডায়ালাইসিস করা হয়েছে।

কিডনি ফাউন্ডেশন হাসপাতাল সিলেটের দ্বিতীয় প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উদযাপন অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন করিম উল্লা মার্কেটের সত্ত্বাধিকারী ও শিল্পপতি আতাউল্লা শাকের, সিলেট সিটি কর্পোরেশেনের কাউন্সিলর আজাদুর রহমান আজাদ, বিশিষ্ঠ ব্যবসায়ী আতাউল করিম, কিডনি ফাউন্ডেশন হাসপাতাল সিলেট-এর ট্রেজারার ও পরিচালক জুবায়ের আহমদ চৌধুরী, কিডনি ফাউন্ডেশন হাসপাতাল সিলেটের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ও কিডনি রোগ বিশেষজ্ঞ ডা: নজমুস সাকিব, এক্সিকিউটিব ডিরেক্টর ডা. কাজী মুশফিক আহমেদ, কিডনি ফাউন্ডেশন হাসপাতাল সিলেট-এর প্রধান নির্বাহী ও পরিচালক ফরিদা নাসরীন, কিডনি ফাউন্ডেশন হাসপাতাল সিলেট-এর ট্রাস্ট্রি বোর্ড-এর সদস্য ডা: মোস্তফা শাহ জামান চৌধুরী বাহার, শাবিপ্রবির সোসিওলজির ডীন ড. কামাল আহমদ চৌধুরী, ডা: শুভার্থী কর, ডা: জাকির হোসেন তপু, ড. মোহাম্মদ আলী ইমাম, মোঃ উবায়েদ বিন বাছিত (সুমন), কিডনি ফাউন্ডেশন সিলেট-এর প্রশাসনিক কর্মকর্তা মহিবুর রহমান রাসেল, দৈনিক উত্তরপূর্ব পত্রিকার জ্যেষ্ঠ সাংবাদিক সজল ঘোষ, কিডনি ফাউন্ডেশন হাসপাতাল সিলেট-এর ম্যানেজার আতিকুর রহমান, ল্যাব ইনচার্জ রফিকুল ইসলাম ও ডায়ালাইসিস ইনচার্জ আব্দুল হান্নান প্রমুখ।

কিডনী ফাউন্ডেশন হাসপাতাল সিলেট-এর ট্রেজারার ও পরিচালক জুবায়ের আহমদ চৌধুরী বলেন, তত্ত্বাবধায়ক সরকারের সাবেক উপদেষ্ঠা ও কিডনী ফাউন্ডেশন হাসপাতাল সিলেট-এর উপদেষ্ঠা রাশেদা কে চৌধুরী, শহীদ ডা. শামসুদ্দিন আহমদের পুত্র ও কিডনী ফাউন্ডেশন হাসপাতাল সিলেট-এর সভাপতি ডা. জিয়া উদ্দিন আহমদ, কিডনি ফাউন্ডেশন সিলেট-এর সাধারণ সম্পাদক ও সমাজসেবক বীর প্রতীক কর্নেল এম এ সালাম (অব), বীর উত্তম মেজর জেনারেল আজিজুর রহমান, ডা. নাজরা চৌধুরী, ডা. সোয়েব আহমদ, কিডনি ফাউন্ডেশন হাসপাতাল সিলেট-এর প্রধান নির্বাহী ফরিদা নাসরীন প্রমুখদের নিঃস্বার্থ ও নিরলস প্রচেষ্ঠায় কিডনি ফাউন্ডেশন হাসপাতাল সিলেট জন্মলগ্ন থেকে মানবতার কাজ করছে।

তিনি বলেন, কিডনি ফাউন্ডেশন হাসপাতাল সিলেট প্রতিষ্ঠা করা হয়েছে মানবতারসেবা করা জন্য। মানুষের চিকিৎসাসেবা নিশ্চিত করার জন্য আমরা আপ্রাণ প্রচেষ্ঠা চালিয়ে যাচ্ছি। তিনি বলেন, মানুষ যাতে কম খরচে চিকিৎসা সেবা পায় সেই সুব্যস্থা রয়েছে কিডনি ফাউন্ডেশন হাসপাতাল সিলেটে। আমরা আজীবন মানুষের সেবা করে যাব।

বর্তমান করোনাভাইরাসের দুর্যোগময় সময়ে সিলেটের খাদিমনগরে সরকারি স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে বিভিন্ন উপকরণ ও জনবল দিয়ে ৩১ শয্যা বিশিষ্ঠ করোনা আইসোলেসন সেন্টারে দেশ/বিদেশের মানুষের সহায়তায় সহযোগিতা করেছে কিডনি ফাউন্ডেশন হাসপাতাল সিলেট। তারই ধারাবাহিকতায় আগামী ২৫ জুলাই দক্ষিণ সুরমা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স এ ৩১ শয্যা বিশিষ্ঠ করোনা আইসোলেসন সেন্টার চালু করা হবে।

উল্লেখ্য, গত ১৭ জানুয়ারি শুক্রবার বিকেল ৪টায় সিলেট শহরতলীর ৬ নং টুকের বাজার ইউনিয়নের ৫ নং ওয়ার্ডের নাজির গাঁওস্থ স্থানে প্রায় আড়াই বিঘা জায়গায় ১০০ কোটি টাকা ব্যয়ে ১০ তলা বিশিষ্ঠ ১১০ শয্যার সিলেটের কিডনি ফাউন্ডেশন হাসপাতালের ভিত্তি প্রস্তর স্থাপন অনুষ্ঠান হয়। এতে প্রধান অতিথি ছিলেন পরিকল্পনা মন্ত্রী এম এ মান্নান। প্রকল্পটির কাজ আগামী নভেম্বর মাসে শুরু হবে। ২০২২ সালে হাসপাতালটি শুভ উদ্বোধন করার আশাবাদ ব্যক্ত করা হয়েছে।

সংবাদ অনুসন্ধান ক্যালেন্ডার

MonTueWedThuFriSatSun
   1234
19202122232425
26272829   
       
  12345
2728     
       
28      
       
       
       
1234567
2930     
       

আমাদের ফেইসবুক পেইজ