হাইকোর্টের রায় লংঘন করে কোন স্কুল বেআইনি ফি নিতে পারবেনা : জেলা প্রশাসক

প্রকাশিত: ৯:৪৫ অপরাহ্ণ, আগস্ট ১২, ২০২০

হাইকোর্টের রায় লংঘন করে কোন স্কুল বেআইনি ফি নিতে পারবেনা : জেলা প্রশাসক

অনলাইন ডেস্ক : সিলেটের জেলা প্রশাসক কাজী এম এমদাদুল ইসলাম বলেছেন, করোনা সংকটে শিক্ষার্থীদের বিষয়ে আমাদেরকে আরো মানবিক হতে হবে। হাইকোর্টের রায় মেনে সকলকে স্কুল পরিচালনা করতে হবে। রায়ের নির্দেশনা লংঘন করে এক শ্রেণি থেকে অন্য শ্রেণিতে উত্তীর্ণ ছাত্র ছাত্রীর কাছ থেকে রিএডমিশন বা অন্য নামে কোন স্কুল বেআইনি ফি নিতে পারবে না।

এ বিষয়ে দ্রুত ব্যবস্হা নেওয়া হবে। প্রয়োজনে এদেরকে আইনের আওতায় আনা হবে। তিনি বলেন, বেআইনি ফির জন্য কোন শিক্ষার্থীকে অনলাইন ক্লাসের বাইরে রাখা যাবে না। একটি শিশুও যেন ঝরে না পড়ে সেদিকে স্কুলগুলোকে খেয়াল রাখতে হবে। বুধবার( ১২ আগস্ট) দুপুরে জেলা প্রশাসক তার কার্যালয়ে সিলেট ইংলিশ মিডিয়াম স্কুল অভিভাবক এসোসিয়েশনের নেতৃবৃন্দের সঙ্গে এক মতবিনিময় সভায় এসব কথা বলেন ।

এ সময় এসোসিয়েশনের নেতৃবৃন্দ বলেন, রাইজ,ইউরো কিডস, বিবিআইএসসি, গ্রামার, খাজাঞ্চিবাড়ি, স্কলার্সহোম সহ কয়েকটি স্কুল হাইকোর্টের রায় লংঘন করে বিভিন্ন নামে বেআইনি ভাবে রিএডমিশনের টাকা নিচ্ছে। করোনা সংকটে সকল স্কুলে শিক্ষার্থীদের টিউশন ফি ৫০% মওকুফ সহ শিক্ষা ব্যয় কমিয়ে আনতে তারা কার্যকর পদক্ষেপ আশা করেন। আনন্দনিকেতন হাইকোর্টের রায় মেনে ও অভিভাবক এসোসিয়েশনের দাবীর প্রতি সম্মান দেখিয়ে রিএডমিশন ফি নিচেছনা বলে নেতৃবৃন্দ জেলা প্রশাসককে অবহিত করেন। এ জন্য তারা আনন্দনিকেতন স্কুল কতৃপক্ষকে ধন্যবাদ ও কৃতজ্ঞতা জ্ঞাপন করেন।

মতবিনিময় শেষে জেলা প্রশাসক কাজী এম এমদাদুল ইসলামের বরাবরে অভিভাবক এসোসিয়েশনে সভাপতি মাহবুব চৌধুরী ও সাধারণ সম্পাদক এডভোকেট আব্দুল মুকিত অপি সাক্ষরিত স্মারকলিপি প্রদান করেন।

স্মারকলিপিতে তারা উল্লেখ করেন, করোনা সংকটে স্কুল বন্ধ থাকলেও ডেভেলপমেন্ট ও মেইনটেনেনস, লাইব্রেরি ও ল্যাব,ওয়াটার এন্ড সেনিটেশন ও স্পোরটস খাতের বিপরীতে এককালীন মোটা অঙ্কের টাকা ছাড়া এক ক্লাস থেকে অন্য ক্লাসে উত্তীর্ণ শিক্ষার্থীদের পড়াশোনার সুযোগ দেওয়া হচ্ছে না, অভিভাবকরা শতভাগ বেতন দিলেও শিক্ষক কর্ম কর্তা কর্মচারীদের পুরো বেতন দেওয়া হচ্ছে না এমনকি ঈদ বোনাসও দেওয়া হয়নি। অভিভাবকদের গুরুত্ব না দিয়ে স্কুলগুলো নিজেদের ইচ্ছেমতো শিক্ষার্থী অভিভাবকদের ওপর নানান অন্যায় সিদ্ধান্ত চাপিয়ে দিচ্ছেন।

করোনা সংকটে সিলেটের হাজারও শিক্ষার্থী, অভিভাবকদের সমস্যা,সকল স্কুলে টিউশন ফি ৫০% মওকুফ,শিক্ষা ব্যয় কমিয়ে আনা,রিএডমিশন বা অন্য নামে বেআইনি ফি আদায় বন্ধে হাইকোর্টের রায় বাস্তবায়নের লক্ষে সিলেট ইংলিশ মিডিয়াম অভিভাবক এসোসিয়েশনের এই মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত হয়।

মতবিনিময়ে অংশ নেন ও উপস্থিত ছিলেন সাবেক প্যানেল মেয়র,আনন্দ নিকেতনের অভিভাবক কাউন্সিলার রেজাউল হাসান কয়েস লোদী , অভিভাবক এসোসিয়েশনের সভাপতি মাহবুব চৌধুরী, সাধারণ সম্পাদক এডভোকেট আব্দুল মুকিত অপি, রাইজ স্কুলের অভিভাবক এড কুতুবউদ্দিন, বিবিআইএসসির অভিভাবক নজরুল ইসলাম প্রমুখ।

সংবাদ অনুসন্ধান ক্যালেন্ডার

MonTueWedThuFriSatSun
15161718192021
22232425262728
2930     
       
  12345
2728     
       
28      
       
       
       
1234567
2930     
       

আমাদের ফেইসবুক পেইজ