বৃহত্তর সিলেট পাথর সংশ্লিষ্ট ব্যবসায়ি শ্রমিক ঐক্য পরিষদের সভা

প্রকাশিত: ৯:১১ অপরাহ্ণ, আগস্ট ১৯, ২০২০

বৃহত্তর সিলেট পাথর সংশ্লিষ্ট ব্যবসায়ি শ্রমিক ঐক্য পরিষদের সভা

অনলাইন ডেস্ক :: সিলেটের পাথর কোয়ারীসমূহ হতে পাথর উত্তোলনের সুযোগ প্রদানের মাধ্যমে এ অঞ্চলের লাখো মানুষের জীবিকা সচলের দাবিতে পাথর ব্যবসায়ি, শ্রমিক, ঐক্য পরিষদের একসভা বুধবার সিলেট নগরীর এক আবাসিক হোটেলে অনুষ্ঠিত হয়।

বিমান বন্দর থানা স্টোন ক্রাশার পাথর ব্যবসায়ি সমিতির উদ্যোগে আয়োজিত সভায় সভাপতিত্ব করেন কোম্পানীগঞ্জ উপজেলা স্টোন ক্রাশার মালিক সমিতির সভাপতি মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডার আব্দুন নূর। সভায় প্রধান আলোচক হিসাবে বক্তব্য রাখেন বাংলাদেশ আওয়ামীলীগের কেন্দ্রিয় সাংগঠনিক সম্পাদক শফিউল আলম চৌধুরী নাদেল।

এয়ারপোর্ট থানা পাথর ব্যবসায়ি সমিতির সেক্রেটারি নূরুল আমিনের সঞ্চালনায় সভায় বক্তব্য রাখেন সিলেট চেম্বারের পরিচালক আতিকুর রহমান, কোম্পানীগঞ্জ উপজেলার পাথর ব্যবসায়ি সমিতির সভাপতি আব্দুল জলিল, সাধারণ সম্পাদক আবুল হোসেন, কোম্পানীগঞ্জ উপজেলার স্টোন ক্রাশার মালিক সমিতির সেক্রেটারি আফতাব আলী কালা, বিমান বন্দর থানা স্টোন ক্রাশার মালিক ও ব্যবসায়ি সমিতির সভাপতি নাছির উদ্দিন, জাফলং পাথর ব্যবসায়ি সমিতির সভাপতি রহিম খাঁন, সেক্রেটারি দেলওয়ার হোসেন, জাফলং স্টোন ক্রাশার মালিক সমিতির সভাপতি বাবলু বক্ত, সেক্রেটারি ইলিয়াছ উদ্দিন লিপু, ছাতক পাথর ব্যবসায়ি সমবায় সমিতির সভাপতি ওয়াদুদ আলম, সেক্রেটারি সামসু মিয়া, সিলেট জেলা ট্রাক শ্রমিক ইউনিয়নের সেক্রেটারি আমির উদ্দিন।

সভায় বক্তারা সিলেটের পাথর কোয়ারীসমূহ বন্ধ থাকায় সেখানে জীবিকা নির্বাহকারী লাখো শ্রমিক ও পাথর ব্যবসায়িদের অর্বননীয় দূর্ভোগের কথা উল্লেখ করে বলেন- সিলেটের সংহভাগ মানুষের জীবাকা নির্বাহের একমাত্র মাধ্যম পাথর কোয়ারী থেকে পাথর উত্তোলন বন্ধ থাকায় এ অঞ্চলের জনগন অবর্ননীয় দুঃখ কষ্টে নিপতিত হয়েছে। যুগ যুগ দরে সিলেটের পাথর কোয়ারী সমূহে পাথর আহরনের মাধ্যমে এ অঞ্চলের মানুষ জীবিকা নির্বাহ করলে ও কয়েক বছর ধরে পাথর কোয়ারী বন্ধ থাকায় এ অঞ্চলের অর্থনিতিতে নেতিবাচক প্রভাব পড়েছে। দেশের নির্মান শিল্পের জন্য অপরিহার্য পর্যাপ্ত পাথর সিলেট কোয়ারীগুলোতে বিদ্যমান, তা স্বত্বেও একটি মহল বিদেশ থেকে পাথর আমদানির নামে হাজার হাজার কোটি টাকা অবচয় করে আসছে। অথচ স্থানীয় ভাবে পাথর আহরন করে তা নির্মান শিল্পে ব্যবহার করলে প্রতি বছর হাজার কোটি টাকার অপচয় থেকে বেশ রক্ষা পেত। ব্যক্তারা বলেন পাথর সংশ্লিষ্ট কর্মহীন শ্রমজীবী মানুষের হাহাকার এবং বেকার হয়ে পড়া এ অঞ্চলের হাজার ও পাথর ব্যবসায়ীদের মানবেতর জীবন যাপনের এ করুণ অবস্থার অবসানে এ অঞ্চলের পাথর কোয়ারী সমূহ শ্রমিকদের কর্মক্ষেত্রের জন্য খুলে দেয়া অপরিহায্য। বক্তারা অবিলম্বে সিলেটের পাথর কোয়ারী সমূহ সচল করে এ অঞ্চলের লাখো মানুষের অস্তিত্ব রক্ষায় এগিয়ে আসার জন্য প্রধান মন্ত্রীর প্রতি আহব্বান জানান।

সভায় অন্যানের মধ্যে বক্তব্য রাখেন পাথর ব্যবসায়ি মো. রফিকুল ইসলাম, আরিফ আহমদ সুমন, শাব্বির আহমদ, শাব্বির আহমদ ফয়েজ, সৈয়দ ছালেহ আহমদ শাহনাজ, শানুর মিয়া, আজির মিয়া, শওকত আলী বাবুল, জসিমুল ইসলাম আঙ্গুর, সামছুজ্জামান দোলন, তজব আলী, শ্রমিক নেতা সিরাজুল ইসলাম, রিয়াজ উদ্দিন, ছাতক পাথর ব্যবসায়ি সমিতির সভাপতি জৈয়নাল উদ্দিন, সেক্রেটারি আবুল হাসান, মোলাগুল পাথর ব্যবসায়ি সমিতির সভাপতি গিয়াস উদ্দিন, সেক্রেটারি আলতাফ হোসেন, বিছনা কান্দি পাথর ব্যবসায়ি সমিতির সভাপতি মাসুক আহমদ, সেক্রেটারি জয়নাল আবেদিন প্রমুখ।

সভায় সিলেটের বিভিন্ন এলাকার পাথর সংশ্লিষ্ট জীবিকা নির্বাহকারী ব্যবসায়ি ও শ্রমিক সংগঠনের সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদকদের নিয়ে “বৃহত্তর সিলেট পাথর সংশ্লিষ্ট ব্যবসায়ি শ্রমিক ঐক্য পরিষদ” গঠন করা হয়। সংগঠনের আহবায়ক মনোনিত করা হয় কোম্পানীগঞ্জ স্টোন ক্রাশার মালিক সমিতির সভাপতি মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডার আব্দুন নূর কে, যুগ্ম আহ্বায়ক যথাক্রমে নাজিম উদ্দিন, নাছির উদ্দিন, ইলিয়াছ উদ্দিন লিপু, আবুল হাসান, গোলাম হাদি ছয়ফুল, আবু সরকার, গোলাম হোসেন, দেলওয়ার হোসেন, রফিকুল ইসলাম।

সংবাদ অনুসন্ধান ক্যালেন্ডার

MonTueWedThuFriSatSun
15161718192021
22232425262728
2930     
       
  12345
2728     
       
28      
       
       
       
1234567
2930     
       

আমাদের ফেইসবুক পেইজ