বঞ্চিত আওয়ামী লীগের ব্যানারে মিছিল করেছে সুবিধাবাদী অনুপ্রবেশকারী

প্রকাশিত: ৮:০৯ অপরাহ্ণ, সেপ্টেম্বর ২০, ২০২০

বঞ্চিত আওয়ামী লীগের ব্যানারে মিছিল করেছে সুবিধাবাদী অনুপ্রবেশকারী

অজানা পথে ৪৪ 

লতিফ নুতন :: সিলেটে যারা শনিবার ১৯ সেপ্টেম্বর নগরীতে বঞ্চিত আওয়ামীলীগের ব্যানারে মিছিল করেছে আসলে কি তারা আওয়ামীলীগ ঘরনার নাকি সুবিধাবাদী অনুপ্রবেশ কারী। এ নিয়ে সিলেটের আওয়ামী পরিবারে তোলপাড় হচ্ছে। সংবাদপত্রে কাজ করি বিধায় অনেক ফোন এসেছে। তারা কার ইঙ্গিতে কার চুখ ইশারায় বঞ্চিত আওয়ামী লীগের ব্যানারে মিছিল করেছে। কমিটি তো মাননীয় প্রধানমন্ত্রী,জাতির জনকের কন্যা শেখ হাসিনা স্বাক্ষর করবেন। আমাদের নেত্রীর বিরুদ্ধে তারা কি অবস্থান নিয়েছেন। শুনেছি জেলা আওয়ামী লীগের কমিটি হচ্ছে। তার সত্যতা কতটুকু তা অজনা। বঞ্চিত আওয়ামী লীগ আবার নুতন কোন সংগঠন কি না ? আজ সিলেটে আওয়ামী লীগ ঐক্যবদ্ধ। সিলেটে আওয়ামী লীগ নেতাদের মাঝে মত প্রাথ্যর্ক থাকতে পারে কমিটি নিয়ে তা স্বাভাবিক। তার মানে নয় বঞ্চিত আওয়ামী লীগ না কোন সংগঠন নেই। বিভিন্ন ভাবে জানলাম তারা হকার শ্রমিক লীগ করে। জেলা আওয়ামী লীগের কোন উল্লেখ যোগ্য নেতাকে তো মিছিলের প্রথম সারিতে দেখি নাই। আড়ালে যারা অজানা পথে তারা কারা খতিয়ে দেখা দরকার। আমি ৯২ সালে জেলা আওয়ামী লীগের বর্তমান,সুযোগ্য সাধারন সম্পাদক,জেলা ছাত্রলীগের সাবেক সফল সাধারন সম্পাদক এডভোকেট নাসির উদ্দিন খানের সাথে সিলেট শহর ছাত্রলীগের যুগ্ম আহবায়ক ছিলাম। নিষ্টার সাথে সিলেট শহরে নাসির ভাইয়ের সাথে কাজ করেছি। ২০০৩ সাল থেকে পর পর তিন বার আমি আওয়ামী স্বেচ্ছাসেবকলীগের কেন্দ্রীয় কার্যকরী কমিটি’র সদস্য ছিলাম। আমি আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারন সম্পাদক, আওয়ামী স্বেচ্ছাসেবকলীগের প্রতিষ্টাতা সভাপতি কৃষিবীদ আ ফ ম বাহা উদ্দিন নাসিমের সাথে কমিটি প্রতিষ্টাকালীন কমিটিতে ছিলাম। তারপরও আমি জানি আমার নাম কমিটিতে নেই। তাতে কোন দুঃখ নেই। বর্তমান জেলা নেতৃত্ব জেলা পথে যাবে তাকে আমরা সমর্থন করে যাবো। জেলা আওয়ামী লীগের পুনাঙ্গ কমিটি একান্ত দরকার। কমিটিতে না থাকা মানে হতায় থামা নয়। আওয়ামী লীগকে ভালবাসলে এই ঐতিহ্যবাহী সংগঠনের কর্মী এঠাই বড় প্রার্থী। আমি জাতির জনকের বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের একজন আদর্শের একজন সৈনিক। এর চেয়ে পাওয়ার আর কি আছে। বাঙ্গালী জাতির রাখাল রাজা,হাজার বছরের শেষ্ট সন্তান বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের হাতে গড়া সংগঠন আওয়ামী লীগ। আমাদের মমতাময়ী মা মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা আজ ক্ষমতায়। ফলে দেশে উন্নয়নের গনজোয়ার সৃষ্টি হয়েছে। উন্নয়নের ধারাবাহিকতা ধরে রাখতে জেলা,মহানগর,উপজেলা,ইউনিয়ন পর্য্যায়ে যোগ্য নেতৃত্ব দরকার। যে বা যারা আজ কমিটি নিয়ে হতাশ ভূগছেন আপনারা হতাশ থামবেন না। আওয়ামী লীগে মূল্যায়ন হয়। ইতিপূর্বে অনেকের মূল্যায়ন হয়েছে। কিন্তুু যদি তাকে নিজ থেকে নিজে সামাল দিবে তার দায়ভার নিবে কে ? সিলেটে আওয়ামী লীগ রাজনীতিতে গ্রুপিং রাজনীতি শুরু করার অপ্রচেষ্টা চলছে তাতে তা প্রতিহত করুন। কমিটিতে থাকা না থাকা প্রিয় নেত্রী কাছে ছেড়ে দেন। প্রাণ নেত্রী মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা সিলেটের খবর সব জানেন। তাই বলতে চাই অজানা পথে হাঁঠবেন না। বলয় রাজনীতির অবসান চাই। পকেট কমিটি চাই না। তাই সকলের মূল্যায়ন। বঞ্চিত বলতে কিছু নেই। সঠিক ধারায় রাজনীতি চলছে। সু স্বাগতম যে কমিটি আসবে। ধন্যবাদ।

সংবাদ অনুসন্ধান ক্যালেন্ডার

MonTueWedThuFriSatSun
15161718192021
22232425262728
2930     
       
  12345
2728     
       
28      
       
       
       
1234567
2930     
       

আমাদের ফেইসবুক পেইজ