সম্প্রীতির নগরী সিলেটে দুর্গাপূজা হোক স্বাস্থ্যবিধি ও সামাজিক দূরত্ব মেনে: পররাষ্ট্রমন্ত্রী

প্রকাশিত: ১১:০৭ অপরাহ্ণ, অক্টোবর ১৬, ২০২০

সম্প্রীতির নগরী সিলেটে দুর্গাপূজা হোক স্বাস্থ্যবিধি ও সামাজিক দূরত্ব মেনে: পররাষ্ট্রমন্ত্রী

অনলাইন ডেস্ক :: পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. এ.কে আব্দুল মোমেন বলেছেন, সিলেটের মাটি পবিত্র। তাই সিলেট নগর সম্প্রীতির নগর। সিলেটে সকল ধর্মের মানুষের মাঝে সৌহার্দ্য, প্রেম ও অকৃত্রিম ভালোবাসার জোরালো মেলবন্ধন চিরকাল ধরে চলে আসছে। সিলেটের মানুষের মাঝে মানুষের মহাসম্মিলন গৌরব করার মতো, অহংকার করার মতো। প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনার সুযোগ্য নেতৃত্বের কারণে দেশ আলোকিত পথে এগিয়ে যাচ্ছে। দেশের সকল ধর্মের মানুষ ঐক্যবদ্ধ হয়ে বসবাস করছে ও সুখ-শান্তি বিরাজ করছে সকল স্থানে।

তিনি বলেন, এবারকার শারদীয় দুর্গাপূজা অনুষ্ঠিত হবে এক ভিন্ন প্রেক্ষাপটে। বৈশিক ভয়াবহ মহামারি করোনাভাইরাসের সংক্রমণের কারণে পুরো পৃথিবী আজ অস্থিরতায় রয়েছে। মানুষ মৃত্যু আতঙ্কে রয়েছে। এ জটিল অবস্থায় শারদীয় দুর্গাপূজা উৎসব পালন করতে হবে নিজেকে রক্ষা করে এবং অন্যকেও রক্ষা করে।

তিনি বলেন, সম্প্রীতির নগর সিলেটে শারদীয় দুর্গাপূজা উৎসব হোক যথাযথ স্বাস্থ্যবিধি ও সামাজিক দূরত্ব মেনে। সারা বিশ^ থেকে ভয়াবহ করোনাভাইরাস চিরতরে নির্মূল হোক, এ প্রার্থনা হোক এবারকার শারদ উৎসবে আমাদের সবার।

তিনি শুক্রবার (১৬ অক্টোবর) বিকেল সাড়ে ৩টায় সিলেট নগরের নিম্বার্ক আশ্রমে শারদীয় দুর্গাপূজা উপলক্ষে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার শুভেচ্ছা বরাদ্দের অনুদানের চেক বিতরণ অনুষ্ঠানে ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে প্রধান অতিথির বক্তব্যে এসব কথা বলেন।

ধর্ম বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের হিন্দু ধর্মীয় কল্যাণ ট্রাস্ট আয়োজিত অনুষ্ঠানে পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. এ.কে আব্দুল মোমেন বলেন, ‘ধর্ম যার যার, উৎসব সবার’ এ কথা মেনে চললে দেশ হবে উন্নত ও সমৃদ্ধ। তাতে হবে না কোনো সন্ত্রাস ও সহিংসতা।

অনুষ্ঠানে ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে সভাপতিত্ব করেন হিন্দু ধর্মীয় কল্যাণ ট্রাস্ট সিলেট সুনামগঞ্জের দায়িত্বপ্রাপ্ত ট্রাস্ট্রি প্রকৌশলী পি.কে চৌধুরী। অনুষ্ঠানে সিলেট জেলার সকল উপজেলা এবং সিলেট মহানগর মিলিয়ে ৮৪টি সার্বজনীন পূজা কমিটিকে অনুদানের চেক প্রধান করা হয়।

অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন- সিলেটের রামকৃষ্ণ মিশন ও আশ্রমের অধ্যক্ষ শ্রীচন্দ্রনাথানন্দজী মহারাজ, সিলেট মহানগর আওয়ামী লীগ সভাপতি ও বীর মুক্তিযোদ্ধা মাসুক উদ্দিন আহমদ, সাধারণ সম্পাদক অধ্যাপক জাকির হোসেন, সিলেট জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক অ্যাডভোকেট নাসির উদ্দিন খান, সিলেটের পিপি অ্যাডভোকেট নিজাম উদ্দিন, শাবিপ্রবির শিক্ষক ড. হিমাদ্রি শেখর, সিলেট জেলা পূজা উদ্যাপন পরিষদের সভাপতি গোপিকা শ্যাম পুরকায়স্থ, সিলেট জেলা প্রেসক্লাব সভাপতি তাপস দাশ পুরকায়স্থ, ড. বনদীপ লাল দাস, সিলেট মহানগর পূজা উদ্যাপন পরিষদের সভাপতি সুব্রত দেব, মহানগর ঐক্য পরিষদের সাধারণ সম্পাদক প্রদীপ কুমার দেব, সিলেট মহানগর পূজা উদ্যাপন পরিষদের সাধারণ সম্পাদক রজত কান্তি গুপ্ত, সিলেট সিটি কর্পোরেশনের কাউন্সিলর বিক্রম কর সম্রাট, ওসমানীনগর পূজা উদ্যাপন পরিষদের সাধারণ সম্পাদক ডি কে জয়ন্ত, মহালক্ষ্মী বাড়ি পূজা কমিটির সভাপতি শিবব্রত ভৌমিক, শিববাড়ি মন্দির কমিটির সাধারণ সম্পাদক অ্যাডভোকেট বিপ্লব দে মাধব, কানাইঘাট পূজা কমিটির সভাপতি ভানু লাল দাস, চালিবন্দর সার্বজনীন পূজা কমিটির সাধারণ সম্পাদক অ্যাডভোকেট বিজয় কুমার দেব বুলু, দেবপুর পূজা কমিটির সাধারণ সম্পাদক রিংকু দাস গুপ্ত, গোয়াইনঘাট পূজা কমিটির সাধারণ সম্পাদক দেবব্রত ভট্টাচার্য্য, চন্দন দাস ও বিভাকর দেব প্রমুখ।

পুরো অনুষ্ঠান পরিচালনা করেন অ্যাডভোকেট বিজয় কৃষ্ণ বিশ^াস। অনুষ্ঠানের শুরুতেই পবিত্র শ্রীমদ্ভাগবত গীতা পাঠ করেন বনমালী ভট্টাচার্য্য।

উল্লেখ্য, গত বছর সিলেট জেলায় ৩৭টি সার্বজনীন পূজা কমিটিকে অনুদানের চেক প্রদান করা হয়।

সংবাদ অনুসন্ধান ক্যালেন্ডার

MonTueWedThuFriSatSun
     12
17181920212223
24252627282930
       
22232425262728
2930     
       
  12345
2728     
       
28      
       
       
       
1234567
2930     
       

আমাদের ফেইসবুক পেইজ