হাজী সেলিমের সেই ৯তলা বাড়ি ঘিরে বাড়ছে কৌতূহল!

প্রকাশিত: ১২:১৬ পূর্বাহ্ণ, অক্টোবর ২৭, ২০২০

হাজী সেলিমের সেই ৯তলা বাড়ি ঘিরে বাড়ছে কৌতূহল!

অনলাইন ডেস্ক

রাজধানীর চকবাজার এলাকার ২৬ দেবীদাসলেন। ভবনটি ‘চাঁন সরদার দাদার বাড়ি’ নামে পরিচিত। ৯ তলা বিশিষ্ট সেই বাড়ি দেখে মনে হবে যেন কোনো রাজপ্রাসাদ। নিজের সেই রাজপ্রাসাদেই থাকতেন সরকার দলীয় এমপি হাজী সেলিমের ছেলে ও ওয়ার্ড কাউন্সিলর ইরফান সেলিম। এতদিন এ বাড়িটি নিয়ে মানুষের কোনো কৌতূহল ছিল না। ছিল নিরিবিলি পরিবেশ। কিন্ত সোমবার দুপুরে সেই বাড়ি নিয়ে স্থানীয় মানুষের কৌতূহলের শেষ নেই।

ওই বাড়িতে অভিযান চালিয়ে সরকার নিষিদ্ধ ওয়্যারলেস নেটওয়ার্কিং সিস্টেম, বিদেশি মদ, অস্ত্র, চাইনিজ কুড়াল প্রভৃতি উদ্ধার করে র‌্যাব। মদ্যপান ও অবৈধ ওয়াকিটকি ব্যবহার করার দু’টি অভিযোগে ইরফান সেলিম ও তার দেহরক্ষী মো. জাহিদকে এক বছর করে কারাদণ্ড দেয় র‌্যাবের ভ্রাম্যমাণ আদালত।

সরেজমিন দেখা গেছে, কারুকার্যময় বাড়ির গেটের সামনে মানুষের ভিড়। বাড়িটির নিরাপত্তা ব্যবস্থাও সাধারণ কোনো বাড়ির মতো নয়। প্রযুক্তি সমৃদ্ধ গেট দিয়েই ভেতরে প্রবেশ করতে হয়।
পুরো বাড়িটি যেন আধুনিক ও নান্দনিকের ছোয়ায় ভরে আছে। বাড়িতে ঢুকতেই চোখে পড়বে হাজী সেলিমের বাবা-মায়ের বড় ছবি।

বাড়ির চতুর্থ ও পঞ্চম তলায় যেখানে অভিযান পরিচালনা করে র‌্যাব। এই দুই তলায় ওঠার জায়গায় সুরক্ষিত দরজা রয়েছে। পঞ্চম তলায় কক্ষটিতে ইরফান ও তার স্ত্রীর ছবি রয়েছে। এ কক্ষে ইরফানের দাদার রেখে যাওয়া একটি কাঠের আলমিরা রয়েছে। সেখানে এক পাশে কটি ডিজাইন সম্বলিত বিভিন্ন পোশাক দেখা গেছে।

ভবন ঘুরে দেখা গেছে, ভবনের মূল সিড়ির বাইরে খাটের আলাদা সিড়ি রয়েছে। পঞ্চম তলায় পুরো কক্ষটি ছিল সাদা টাইলস সম্বলিত। সেখানে কাঠের আলমারি, গোল্ডেন রংয়ের বিভিন্ন নান্দনিক ডিজাইন সম্বলিত দরজা রয়েছে। পার্শের কক্ষে একটি কাল রংয়ের ভাস্কর্য দেখা গেছে।

ওই কক্ষে একটি কাঠের বাক্সে ৫টি মদের বোতল ছিল। সেখানে কলের গানের সরঞ্জামও দেখা গেছে। পুরো কক্ষে উন্নত মানের লাইট দিয়ে সাজানো ছিল। রয়েছে উন্নতমানের সাউন্ড সিস্টেম।

অভিযানে থাকা নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট সারওয়ার আলম বলেন, এসব অস্ত্র ও হ্যান্ডকাফের বিষয়ে কোনো সদুত্তর দিতে পারেননি ইরফান সেলিম। আমাদের ধারণা এগুলো দিয়ে তিনি সাধারণ মানুষকে ভয়ভীতি দেখাতেন।

রোববার (২৫ অক্টোবর) রাতে এমপি হাজী মোহাম্মদ সেলিমের ‘সংসদ সদস্য’ লেখা সরকারি গাড়ি থেকে নেমে নৌবাহিনীর কর্মকর্তা ওয়াসিফ আহমেদ খানকে মারধর করা হয়। রাজধানীর কলাবাগান সিগন্যালের পাশে এ ঘটনা ঘটে। রাতে এ ঘটনায় জিডি হলেও আজ ( সোমবার) ভোরে হাজী সেলিমের ছেলেসহ সাতজনের বিরুদ্ধে মামলা করা হয়।

সংবাদ অনুসন্ধান ক্যালেন্ডার

MonTueWedThuFriSatSun
     12
17181920212223
24252627282930
       
22232425262728
2930     
       
  12345
2728     
       
28      
       
       
       
1234567
2930     
       

আমাদের ফেইসবুক পেইজ