মৌলভীবাজারে কালবৈশাখির তান্ডব : হাওরের আগাম ফসলের ক্ষতি

প্রকাশিত: ৭:১৬ অপরাহ্ণ, এপ্রিল ১, ২০২৪

মৌলভীবাজারে কালবৈশাখির তান্ডব : হাওরের আগাম ফসলের ক্ষতি

মৌলভীবাজারে কালবৈশাখির তান্ডব : হাওরের আগাম ফসলের ক্ষতি

 

স্বপন দেব, নিজস্ব প্রতিবেদক :: মৌলভীবাজার জেলাজুড়ে রোববার (৩১ মার্চ) রাতে ব্যাপক কালবৈশাখি ঝড় ও শিলাবৃষ্টি হয়েছে। একেকটি শিলা আকারে অনেক বড় ছিল। চৈত্রের শেষে এমন শিলাবৃষ্টিতে বোরোসহ বিভিন্ন ফসলের ব্যাপক ক্ষয়ক্ষতির আশঙ্কা দেখা দিয়েছে। এছাড়া শিলাবৃষ্টির পর থেকে মৌলভীবাজারের জেলার বিভিন্ন স্থানে বিদ্যুৎ সংযোগ বিচ্ছিন্ন রয়েছে।
বিদ্যুৎ উন্নয়ন বোর্ডের নিবার্হী প্রকৌশলী মোঃ ফজলুল করিম জানিয়েছে, প্রবল ঝড় ও শীলাবৃষ্টিতে মৌলভীবাজারে বিভিন্ন স্থানে বৈদ্যুতিক লাইন ক্ষতিগ্রস্ত হওয়ার কারণে বিভিন্ন এলাকায় বিদ্যুৎ সরবরাহ বন্ধ রয়েছে। বিদ্যুৎ সরবরাহ স্বাভাবিক করার কাজ চলছে।
জানা যায়, রাতে রাস্তায় থাকা সাধারণ মানুষ, পথচারী ও ঈদের কেনাকাটায় যাওয়া লোকজন বিপাকে পড়েন। শিলায় প্রাইভেটকার ও সিএনজিচালিত অটোরিক্সাসহ অন্যান্য যানবাহনের গ্লাস ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে।
এর আগে মৌলভীবাজারে এরকম শিলাবৃষ্টি আগে দেখা যায়নি বলে মন্তব্য করছেন অনেক বয়োবৃদ্ধ। অনেকে ফেইসবুকে গাড়ি ভাংচুরের ছবি আপলোড দিয়েছেন। কারও কারও বাসার টিনের চালা ফুটো ও জানালার কাঁচের গ্লাস শিলাবৃষ্টিতে ক্ষতিগ্রস্ত হয়। এছাড়া অনেকের ছাদে থাকা পানির ট্যাংক ও পাইপ ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে জানা গেছে। আহত হয়েছেন খোলা জায়গায় ও রাস্তায় অবস্থান করা অনেকে।
মৌলভীবাজার শহরের বাসিন্দা রাকিব আহমদ বলেন, যে বড় আকারে শিলা পড়েছে তা আমরা ছোটবেলায় দেখেছি। এত বড় আকারে শিলাবৃষ্টিতে কৃষি ফসলের ব্যাপক ক্ষতির আশঙ্কা রয়েছে।
মৌলভীবাজার সদর হাসপাতালের মেডিকেল অফিসার ডা.জামান আহমদ বলেন,ঝড়ের কবলে পড়ে আহত হয়েছে এমন কোনো রোগী সদর হাসপাতালে আসেন।
মৌলভীবাজার কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরের সূত্রে জানা যায়, ঝড়ের সঙ্গে শিলাবৃষ্টি হয়েছে। এতে হাওরের আগাম ধানের জাতের ধানের ক্ষতি হয়েছে। আমরা সব জায়গায় থেকে খবর নিচ্ছি।
মৌলভীবাজার জেলা প্রশাসক ড. উর্মি বিনতে সালাম বলেন,গত রাতে ঝড়,বজ্রপাত ও শিলাবৃষ্টি হয়েছে জেলাজুড়ে। জেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে ক্ষয়ক্ষতির খবর সংগ্রহ করা হচ্ছে।

সংবাদ অনুসন্ধান ক্যালেন্ডার

MonTueWedThuFriSatSun
22232425262728
2930     
       
  12345
2728     
       
28      
       
       
       
1234567
2930     
       

আমাদের ফেইসবুক পেইজ