ইমপ্যাক্ট বদলির নিয়ম পছন্দ নয় কোহলিরও

প্রকাশিত: ৬:১১ অপরাহ্ণ, মে ১৯, ২০২৪

ইমপ্যাক্ট বদলির নিয়ম পছন্দ নয় কোহলিরও

বিরাট কোহলি

 

ইমপ্যাক্ট বদলির নিয়ম পছন্দ নয় কোহলিরও

 

অনলাইন ডেস্ক

 

 

মাঠে নামলেই নিজেকে মেলে ধরার জন্য মুখিয়ে থাকেন বিরাট কোহলি। কোহলি এখন খেলছেন আইপিএলে। ভারতের ফ্র্যাঞ্চাইজি টুর্নামেন্টে রানের স্রোত বইয়ে চলেছেন তিনি। আসরে ৭০০ রান করা একমাত্র ব্যাটসম্যান ভারতীয় ক্রিকেটের এই নক্ষত্র। রয়্যাল চ্যালেঞ্জার্স বেঙ্গালুরুর হয়ে ১৪ ম্যাচে এখন পর্যন্ত তার রান ৭০৮। পাঁচ ফিফটির সঙ্গে সেঞ্চুরি করেছেন একটি। স্ট্রাইক রেট ১৫৫.৬০ ও ব্যাটিং গড় ৬৪.৩৬।

এবার তিনি টি-টোয়েন্টিতে ব্যাটসম্যানদের দাপট নিয়েও কথা বলেছেন। সাক্ষাৎকারে কোহলি বলেছেন, চার-ছক্কা হলেই ম্যাচ জমে না। ব্যাটসম্যান ও বোলারের মধ্যে প্রতিদ্বন্দ্বিতার জায়গা থাকলেই ক্রিকেট আনন্দদায়ক হয়ে ওঠে।
এবারের আইপিএলে প্রচুর রান ওঠার অন্যতম কারণ ইমপ্যাক্ট বদলি, এমনটা বলেছেন দলগুলোর সঙ্গে সংশ্লিষ্ট অনেকেই। ইমপ্যাক্ট বদলি নিয়মের কারণে দলগুলো কার্যত ১২ জনকে খেলায়। একজন বাড়তি ব্যাটসম্যান আছেন ভরসায় অন্যদের আক্রমণাত্মক ব্যাটিংয়ের সুযোগ বাড়ে। ভারত অধিনায়ক রোহিত বলেছিলেন, ইমপ্যাক্ট বদলির কারণে অলরাউন্ডারদের সুযোগ কমে যাচ্ছে। ১১ জনের খেলায় ১২ জনের মাঠে নামায় বিনোদনের নামে ক্রিকেট থেকে অনেক কিছু চলে যাচ্ছে।

সতীর্থের কথায় সমর্থন জানিয়ে কোহলি বলেন, আমি রোহিতের সঙ্গে একমত। খেলার একটা দিক হচ্ছে বিনোদন, কিন্তু সেটা করতে গিয়ে কোনো সমতা থাকছে না। এ অবস্থায় বোলারদের খারাপ লাগারই কথা। আমি আগে কখনো এমন পরিস্থিতি দেখিনি, যেখানে একজন বোলারকে প্রতিটি বলে চার বা ছয় হজমের কথা ভাবতে হচ্ছে। আমরা উঁচু পর্যায়ের ক্রিকেট খেলছি, সেখানে একপক্ষের দাপট থাকা উচিত নয়। ব্যাট আর বলের সমতার মধ্যে একধরনের সৌন্দর্য আছে। সব দলে তো আর বুমরা বা রশিদ খান নেই।

আগামী ২৬ মে পর্দা নামবে এবারের আইপিএলের। এই টুর্নামেন্টের পাঁচদিন পরই ওয়েস্ট ইন্ডিজ ও যুক্তরাষ্ট্রে শুরু হবে টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ। এনিয়ে ষষ্ঠ টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে খেলতে যাচ্ছেন কোহলি। ২০১২ সালে শুরু হওয়া পথচলায় এখন পর্যন্ত একবারও শিরোপার স্বাদ পাননি তিনি। এছাড়া ওয়ানডে বিশ্বকাপ খেলেছেন তিনি চারটি। ২০১১ সালে পেয়েছেন শিরোপা জয়ের স্বাদ।

বিশ্বকাপে কোহলির পারফরম্যান্স দুর্দান্ত। ওয়ানডে বিশ্বকাপে এখন পর্যন্ত ৩৭ ম্যাচ খেলা ডানহাতি এই ব্যাটসম্যান ৫৯.৮৩ গড়ে রান করেছেন ১ হাজার ৭৯৫। নামের পাশে সেঞ্চুরি আছে পাঁচটি, ফিফটি ১২টি। আর টি-টোয়েন্টির বৈশ্বিক আসরে ২৭ ম্যাচে তার রান ১ হাজার ১৪১। ব্যাটিং গড় ৮১.৫০, স্ট্রাইক রেট ১৩১.৩০। ফিফটি করেছেন ১৪টি।

কোহলি বলেন, বিশ্বকাপের মতো টুর্নামেন্টের রোমাঞ্চ-উত্তেজনা তাকে ভালো করতে আরও বেশি তাড়না যোগায়। আর এই মানসিকতা নিয়েই আসছে টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের অপেক্ষায় আছেন তিনি।

তিনি জানান, বলতে পারি, আগের মতোই ক্ষুধার্ত আমি। (ভালো করার) ক্ষুধা না থাকলে আপনারা আমাকে টুর্নামেন্টে দেখতে পাবেন না। আমার যদি এই মানসিকতা না থাকে, তাহলে খেলতে পারব না… একবার দলীয় আবহ তৈরি হয়ে গেলে এটা দারুণ একটি যাত্রা। গত ওয়ানডে বিশ্বকাপেও আমাদের সময়টা দারুণ কেটেছিল। আমরা সত্যিই বিশ্বকাপ উপভোগ করেছি

কোহলি আরও বলেন, দুর্ভাগ্যজনকভাবে, আমরা শিরোপা জিততে পারিনি। কিন্তু দল হিসেবে আমরা দারুণ একটি সময় কাটিয়েছি। আমাদের খেলা মানুষের পছন্দ হয়েছিল। আমি নিশ্চিত, এবারও খুব ভালো একটি টুর্নামেন্ট কাটবে আমাদের।

প্রসঙ্গত, আগামী ৫ জুন আয়ারল্যান্ডের বিপক্ষে ম্যাচ দিয়ে বিশ্বকাপ অভিযান শুরু করবে ভারত।

বিডি-প্রতিদিন

সংবাদ অনুসন্ধান ক্যালেন্ডার

MonTueWedThuFriSatSun
     12
17181920212223
24252627282930
       
22232425262728
2930     
       
  12345
2728     
       
28      
       
       
       
1234567
2930     
       

আমাদের ফেইসবুক পেইজ