হজের টাকা ফেরত পাবেন যেভাবে

প্রকাশিত: ৯:১৭ অপরাহ্ণ, জুন ২৪, ২০২০

হজের টাকা ফেরত পাবেন যেভাবে

অনলাইন ডেস্ক :;

করোনা মহামারীর কারণে এবার সৌদি আরব ছাড়া অন্য দেশে অবস্থানকারীদের হজে অংশ নেয়ার সুযোগ নেই। এ কারণে এ বছর যারা হজের জন্য নিবন্ধন করেছিলেন, তাদের নিবন্ধন ২০২১ সালের প্রাক-নিবন্ধন এবং নিবন্ধন হিসেবে কার্যকর থাকবে।

তবে হজযাত্রীরা (সরকারি বা বেসরকারি ব্যবস্থাপনা) চাইলে নিবন্ধনের টাকা তুলে ফেলতে পারবেন। এজন্য ১২ জুলাইয়ের পর থেকে আবেদন করতে হবে। আর টাকা তুললেই ওই ব্যক্তির হজ নিবন্ধন বাতিল হবে।

সচিবালয়ে বুধবার ধর্ম সচিব মো. নুরুল ইসলামের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত চলতি বছরের হজ ব্যবস্থাপনাবিষয়ক সভায় এ সিদ্ধান্ত হয়। পরে ধর্ম মন্ত্রণালয় বিজ্ঞপ্তি দিয়ে এ তথ্য জানায়।

সভা শেষে জানানো হয়, সৌদি সরকারের ঘোষণা অনুযায়ী এ বছর পবিত্র হজে অংশগ্রহণের সুযোগ না থাকায় যেসব বাংলাদেশি নাগরিক হজে যাওয়ার জন্য নিবন্ধন করেছিলেন, তারা যে কোনো সময় তাদের নিবন্ধনের টাকা তুলে নিতে পারবেন। টাকা তুলে নেয়ার ক্ষেত্রে কেউ যাতে হয়রানির শিকার না হন, সে বিষয়টিও খেয়াল রাখা হবে।

ধর্ম সচিব নুরুল ইসলাম বলেন, চলতি বছরের প্রাক-নিবন্ধন এবং নিবন্ধন যথারীতি ২০২১ (১৪৪২ হিজরি) সালের প্রাক-নিবন্ধন এবং নিবন্ধন হিসেবে কার্যকর থাকবে। ২০২১ সালে কোনো কারণে হজ প্যাকেজের ব্যয় কমবেশি হলে তা বর্তমান হজযাত্রীর জমা দেয়া অর্থের সঙ্গে সমন্বয় করা হবে। কোনো হজযাত্রী নিবন্ধন বাতিল করলে একই সঙ্গে তার প্রাক-নিবন্ধন বাতিল হয়ে যাবে এবং তাকে নতুন করে প্রাক-নিবন্ধন করে হজে যেতে হবে।

ধর্ম সচিব আরও বলেন, বেসরকারি হজ ব্যবস্থাপনার হজযাত্রী নিবন্ধন বাতিল করে টাকা উত্তোলন করতে চাইলে তার হজ এজেন্সির মাধ্যমে অনলাইনে আবেদন করবেন এবং মন্ত্রণালয়ের অনুমোদন সাপেক্ষে এজেন্সি বা ব্যাংকের মাধ্যমে জমা করা অর্থ গ্রহণ করবেন। সরকারি বা বেসরকারি ব্যবস্থাপনায় যেসব হজযাত্রী তাদের জমা করা নিবন্ধনের টাকা তুলতে চান, তাদেরকে ১২ জুলাইয়ের পর আবেদন করতে হবে। নিবন্ধিত হজযাত্রীদের মধ্যে কেউ যদি টাকা না তুলে মনে করেন যে আগামী বছর হজে যাওয়ার জন্য তা রেখে দেবেন, তাহলে সে বিষয়টিকেও স্বাগত জানাবে মন্ত্রণালয়।

সৌদি বাংলাদেশ দ্বিপাক্ষিক হজ চুক্তি অনুযায়ী ১৪৪১ হিজরিতে (এ বছর) সরকারি ও বেসরকারি মিলিয়ে বাংলাদেশ থেকে ১ লাখ ৩৭ হাজার ১৯৮ হজযাত্রীর হজে যাওয়ার সুযোগ ছিল। কিন্তু সরকারি-বেসরকারি মিলিয়ে চ‚ড়ান্ত নিবন্ধন করেছিলেন ৬৪ হাজার ৫৯৯ হজযাত্রী। এর মধ্যে সরকারি ব্যবস্থাপনায় ৩ হাজার ৪৫৭ জন ও বেসরকারি ব্যবস্থাপনায় ৬১ হাজার ১২৪ জন।

হজ এজেন্সিজ অ্যাসোসিয়েশন অব বাংলাদেশের (হাব) সভাপতি এম শাহাদাত হোসাইন তসলিম বলেন, আবদুল্লাহর মেহমানরা হজের নিয়ত করে টাকা জমা দিয়েছেন। অনেকেই হয়তো হজের টাকা ওঠাবেন না। আর হজের টাকা কেউ তুলে নিলে তার প্রাক-নিবন্ধনসহ পুরো নিবন্ধন বাতিল হয়ে যাবে। সেক্ষেত্রে আগামী বছর হজে যেতে চাইলে তাদেরকে নতুনভাবে প্রাক-নিবন্ধন করতে হবে। সেক্ষেত্রে তারা সিরিয়ালে পিছিয়ে পড়বেন। কারণ কোটার চেয়ে প্রাক-নিবন্ধন করা হজযাত্রীর সংখ্যা প্রায় দ্বিগুণ।

এর আগে প্রয়াত ধর্ম প্রতিমন্ত্রী অ্যাডভোকেট শেখ মো. আবদুল্লাহ স্মরণে শোকসভা অনুষ্ঠিত হয়। সেখানে তার আত্মার মাগফিরাত কামনা করে বিশেষ দোয়া করা হয়। ধর্ম মন্ত্রণালয়ের কর্মকর্তা, ইসলামিক ফাউন্ডেশনের প্রধান, বিভাগীয় ও জেলা কার্যালয়ের কর্মকর্তা, হজ অফিসের কর্মকর্তাসহ দেশ ও দেশের বাইরের বিশিষ্ট ওলামায়ে কেরাম ও ব্যক্তিরা জুম অ্যাপের মাধ্যমে সভায় অংশ নেন। অংশ নেন হিন্দু বৌদ্ধ ও খ্রিস্টান ধর্মীয় কল্যাণ ট্রাস্টের কর্মকর্তারাও।

এ সংক্রান্ত আরও সংবাদ

সংবাদ অনুসন্ধান ক্যালেন্ডার

MonTueWedThuFriSatSun
     12
10111213141516
17181920212223
24252627282930
       
22232425262728
2930     
       
  12345
2728     
       
28      
       
       
       
1234567
2930     
       

আমাদের ফেইসবুক পেইজ