বিরোধী দল জেলখানায়, আর লুটপাটে ব্যস্ত সরকারি দল: রিজভী

প্রকাশিত: ৫:৫৫ অপরাহ্ণ, জুন ২৬, ২০২০

বিরোধী দল জেলখানায়, আর লুটপাটে ব্যস্ত সরকারি দল: রিজভী

সিল-নিউজ-বিডি ডেস্ক :: সরকারি দলের পাশাপাশি দেশে বিরোধী দল থাকা আবশ্যক বলে মন্তব্য করেছেন বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী। তিনি বলেছেন,আজ সরকারি দলের নেতাকর্মীরা দেশে দুর্নীতি-লুটপাট করে দাপিয়ে বেড়াচ্ছে, আর বিরোধী দলের নেতাকর্মীদের জেলখানায় আটকে রাখা হয়েছে। সরকারি দল দুর্নীতি-লুটপাট করছে, কিন্তু এসবের অভিযোগে মিথ্যা মামলা দিয়ে বিরোধী দলের নেতাকর্মীদের কারাগারে নেয়া হচ্ছে।

শুক্রবার দুপুরে রাজধানীর শেরেবাংলা নগরে বিএনপির প্রতিষ্ঠাতা জিয়াউর রহমানের মাজারে শ্রদ্ধা নিবেদন শেষ এসব কথা বলেন তিনি।

বিএনপির ঢাকা মহানগর উত্তরের সাধারণ সম্পাদক আহসান উল্লাহ হাসান এর মৃত্যুতে নতুন ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক আব্দুল আলিম নকীকে নিয়ে মাজার জিয়ারত করেন রিজভী।

রিজভী বলেন, গোটা রাষ্ট্রের সম্পদ আত্মসাৎ করার জন্যই সরকার এগুলো করছে। তারা দেশে একদলীয় শাসন ব্যবস্থা চালু রেখেছে। সুষ্ঠু নির্বাচন দেন না। রাতের অন্ধকারে ভোট চুরি করছেন। এটা চলতে পারে না।

বিএনপির নেতাকর্মীদের উদ্দেশে দলের সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব বলেন, গণতন্ত্রের জন্য যারা লড়াই করছে, তারা সত্যের পথে আছেন। খালেদা জিয়ার অনুপ্রেরণায় গণতন্ত্র প্রতিষ্ঠার জন্য লড়াই করে যাচ্ছি। তিনি নিজে নির্যাতন সহ্য করেছেন, যন্ত্রণা ভোগ করেছেন, তারপরও মাথা নত করেননি। এই সরকারের ষড়যন্ত্রে সুদূর প্রবাসে অবস্থান করছেন দলের ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমান। তিনি দিন-রাত সংগঠনের নেতাকর্মীদের দিকনির্দেশনা দিচ্ছেন। তাই আপনারা মনোবল হারাবেন না। যতই বাধা বিপত্তি আসুক আমরা গণতন্ত্র প্রতিষ্ঠা করবই।

তিনি আরও বলেন, আজকে গুমবিরোধী আন্তর্জাতিক দিবস পালিত হচ্ছে। বাংলাদেশে গুম হচ্ছে। বিচারবহির্ভূত হত্যাকাণ্ড হচ্ছে। এসব অপকর্মের সঙ্গে রাষ্ট্র জড়িত।

রিজভী বলেন, আমাদের ছেলেরা হারিয়ে যাচ্ছে গুম হচ্ছে। একের পর এক নিরুদ্দেশ হয়ে যাচ্ছে। লাখ লাখ জীবনের বিনিময়ে আমরা স্বাধীনতা পেয়েছি গণতন্ত্রের জন্য কথা বলার জন্য। তাহলে আজকে এ পরিস্থিতি কেন? মিছিল করা যায় না, কথা বলা যায় না। আর কথা বলতে গেলে, ভিন্নমত প্রকাশ করলে সে গুম হয়ে যাচ্ছে। গ্রেফতার করা হচ্ছে, মিথ্যা মামলা দেয়া হচ্ছে। এটা অমানবিক রাষ্ট্রের একটি দৃষ্টান্ত। এখানে স্বাভাবিক জীবনযাপন করা যায় না।

দেশে মানুষের জান-মালের কোনো নিরাপত্তা নেই মন্তব্য করে বিএনপির এই নেতা বলেন, আজকে বিরোধী দলের নেতাকর্মীরা থাকে জেলখানায় আর সরকারি দলের নেতাকর্মীরা দুর্নীতি, লুটপাট করে সারাদেশ দাপিয়ে বেড়াচ্ছে। তাহলে কি এই নিষ্ঠুর দুর্নীতি-লুটপাটের জন্যই বিরোধী দলকে দমন করছেন? গুম করছেন? মিথ্যা মামলা দিয়ে কারাগারে নেয়া হচ্ছে? গোটা রাষ্ট্রের সম্পদ আত্মসাৎ করার জন্যই কি এগুলো করছেন? একদলীয় শাসনব্যবস্থা চালু রেখেছেন।

এ সময় উপস্থিত ছিলেন—ঢাকা মহানগর উত্তর বিএনপির সিনিয়র সহ-সভাপতি বজলুল বাসিত আঞ্জু, সহ-সভাপতি মাসুদ খান, ঢাকা মহানগর যুবদল উত্তরের সভাপতি এসএম জাহাঙ্গীর হোসেন, সাধারণ সম্পাদক শফিকুল ইসলাম মিল্টন প্রমুখ।

এ সংক্রান্ত আরও সংবাদ

সংবাদ অনুসন্ধান ক্যালেন্ডার

MonTueWedThuFriSatSun
  12345
20212223242526
2728293031  
       
22232425262728
2930     
       
  12345
2728     
       
28      
       
       
       
1234567
2930     
       

আমাদের ফেইসবুক পেইজ