দোয়ারাবাজারে চরম দূর্ভোগে বানভাসি লাখো মানুষ

প্রকাশিত: ৪:২৮ অপরাহ্ণ, জুন ২৮, ২০২০

দোয়ারাবাজারে চরম দূর্ভোগে বানভাসি লাখো মানুষ

 দোয়ারাবাজার প্রতিনিধিঃ চারদিনের টানা বর্ষণ ও অব্যাহত পাহাড়ি ঢলে সৃষ্ট বন্যায় দোয়ারাবাজার উপজেলার ৯ ইউনিয়নর লাখো বানভাসি মানুষের দূর্ভোগ চরমে। পানিতে ভেসে গেছে শতাধিক ঘেরের কোটি টাকার মাছ। তলিয়ে গেছে শতাধিক হেক্টর উঠতি আউশ ফসল, আমনের বীজতলা ও সবজি খেত। উপজেলা সদরের সাথে সকল ইউনিয়নর সড়ক যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন রয়েছে। দোয়ারাবাজার-বগুলা-লক্ষীপুর সড়কে সুরমা ইউনিয়নের মোকামের পাশে, বগুলা ইউনিয়নস্থ ক্যাম্পের ঘাটের পাশে ও উত্তর আলমখালী অংশে চিলাই নদীর বেড়িবাঁধে ভাঙনসহ বিভিন্ন সড়কে অনেকগুলো ফাঁটল ও ভাঙন দেখা দিয়েছে। একদিকে মহামারি করোনার থাবা, অপরদিকে ভয়াল বন্যার ছোবল। এ যেন ‘মরার উপর খরার ঘা’। বিশেষত খেটে খাওয়া দিনমজুর মানুষজন পড়েছেন চরম দূর্ভোগে। এসব দৈন্যদশায় দোয়ারাবাজার উপজেলাকে বন্যা দূর্গত এলাকা ঘোষণার দাবি জানিয়েছেন সচেতন মহল। উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা সোনিয়া সুলতানা জানান, দূর্যোগ মোকাবেলায় মনিটরিং ছাড়াও কন্ট্রোলরুমসহ বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে বন্যা আশ্রয়কেন্দ্র খোলা হয়েছে। সর্বাধিক ক্ষতিগ্রস্ত দোয়ারা সদর ও সুরমা ইউনিয়নের বানভাসিদের মাঝে শুকনো খাবারসহ ত্রাণ বিতরণ করা হয়েছে। পর্যায়ক্রমে বাকি ইউনিয়নগুলোতেও ত্রাণ বিতরণ করা হবে। সকল ইউপি চেয়ারম্যানকে নিয়ে দূর্যোগ ব্যবস্থাপনা কমিটির জরুরি সভা করে ক্ষয়ক্ষতির তালিকা তৈরির নির্দেশ দেয়া হয়েছে বলে তিনি জানান।

এ সংক্রান্ত আরও সংবাদ

সংবাদ অনুসন্ধান ক্যালেন্ডার

MonTueWedThuFriSatSun
  12345
20212223242526
2728293031  
       
22232425262728
2930     
       
  12345
2728     
       
28      
       
       
       
1234567
2930     
       

আমাদের ফেইসবুক পেইজ